July 20, 2024

চার বিঘা জমির ধান কেটে ও ধানের গাছ উপড়ানো কে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে ইটাহার থানার মারনাই গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঙ্গার গ্রাম এলাকায়

1 min read
 মামুন সরকার ::- ইটাহার :–চার বিঘা জমির ধান কেটে ও ধানের গাছ উপড়ানো কে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে ইটাহার থানার  মারনাই গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঙ্গার গ্রাম এলাকায় ।
ঘটনায় কান্নায় ভেঙে পড়ে জমির মালিক  তার স্ত্রী সহ আত্মীয়রা ।গত কালরাতে  এমন ঘটনা ঘটাতে তীব্র নিন্দা করেছেন ইস্থানীও রা  ।ইস্থানীও সূত্রে জানা যায় জমিটি ছিল সুধাংশু দাসের প্রায় গত তিরিশ বছর আগে এই চার বিঘা জমি লিজ নিয়েছিলেন  রবীন্দ্রনাথ দাস ৯৯ বছরের জন্য। রবীন্দ্রনাথ এই জমি চাষ করে আসছে তিরিশ বছর ধরে,, কিন্তু হঠাৎ সুধাংশু দাসের ছেলেরা এই জমি দাবি করে বসে ফলে  একাধিক বার গ্রামীন বিচার হয়েছে কিন্তু মানা মানি না হওয়ার কারণে এই বিচার চলে যায় আদালতে ।
 গত বন্যায় ধান না হওয়ায় আবার জমিতে ধান লাগিয়ে ছিলেন রবীন্দ্রনাথ আজ সকালে জমির ধান দেখতে গিয়ে দেখেন তার জমির ধান দুস্কৃতির নষ্ঠ করে ফেলেছে তিনি বাড়ি ফিরে ঘটনাটি সবাইকে খুলে বলেন ইস্থানীওড়া ছুটে যাই জমিতে  কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে জমির মালিক ও তার স্ত্রী  উষা রানী  ও অভিযোগ করে বলেন আমাদের এই জমির ধান নষ্ঠ করে ফেলেছে এখন আমরা কি খাবো খুব খারাপ অবস্থা আমাদের ।কে দেখবে আমাদের যারা এই কাজ করেছে তাদের শাস্তি চাই  এবং কয়েক জনের নাম উল্লেখ করে বলেন তিনি এবং বলেন তোফাজ্জুল হুসেনের নেতৃত্বে এমন করছে তারা ।
এই বিষয়ে ইস্থানীও তৃণমূল নেতা ক্ষতিবুদ্দিন বলেন সত্যি ঘটনাটা খুব দুঃখ জনক এমন কাজ যারা করে তারা হয়তো মানুষের মধ্যে পড়ে না আমি চাই সেই দুষ্কৃতীদের শাস্তি দেওয়া হোক ,,যেখানে আমাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  কৃষক দের জন্য এত কিছু করছে সেখানে সমাজের অসাধু মানুষরা এরকম গরিব মানুষের জমি হাতিয়ে নিয়ে দালাল চক্র চালাচ্ছে ।
আর জমি না দিতে চাইলে রবীন্দ্রনাথ বাবুর মতো ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে তাদে অল্প কিছু টাকার জন্য এরকম দালালি করছেন তারা এই দালালি অবশ্যই বন্ধ করতে হবে । তিনি আরো জানান আমি এই কৃষকদের পাশে আছি আমি যত দূর পারি চেষ্টা করবো এদের কিছু সরকারি সাহায্য পাইয়ে দেওয়ার ।
এই বিষয় টি লিখিত অভিযোগ করে থানায় ।তবে এই ঘটনায় যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন তারা তৃণমূল পাটির সাথে যুক্ত এবং প্রাক্তন প্রধান ছিলেন তোফাজুল হোসেন ।তোফাজুল হো
সেনের সাথে যোগাযোগ করতে গেলে তিনি বাড়িতে না থাকারনা ফোনে যোগাযোগ করতে হয় তিনি বলেন আমার বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগ মিথ্যে আমি কি স্বার্থে ওখানে যাবো কেনই বা গরিব মানুষের ক্ষতি করার চেষ্টা করবো ।আমি জন প্রতিনিধি আমরা মানুষের উপকার করি ক্ষতি নয় ।তিনি আরো বলেন এখানে চলছে রাজনৈতিক চক্র আমাকে মানুষের চোখে খারাপ করার জন্য এই কাজ করেছে তারা ।তারা কেস করেছে পুলিশ তদন্ত শুরু করুক দেখুক কে অভিযুক্ত ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *