April 22, 2024

হেমতাবাদ হাই স্কুলের শিক্ষক নীলমণি সরকারকে বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে এক মাসের মধ্যে ঋণের টাকা ফেরত দেবার নির্দেশ দিল আদালত

1 min read

হেমতাবাদ হাই স্কুলের শিক্ষক নীলমণি সরকারকে বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে এক মাসের মধ্যে ঋণের টাকা ফেরত দেবার নির্দেশ দিল আদালত

তপন চক্রবর্তী,কালিয়াগঞ্জ,৩০জুন: উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে হেমতাবাদের আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক নীলমণি সরকারকে ঋণ বাবদ কেটে নেওয়া অতিরিক্ত ৫১হাজার টাকা এক মাসের মধ্যে ফিরিয়ে দেবার রায় দি আদালত। বুধবার উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের দুই বিচারপতি যথাক্রমে রুবি আচার্য এবং স্বপন কুমার রায়ের বেঞ্চ এই ঐতিহাসিক রায় দান করেন।এ ছাড়াও বিচারপতিগণ মামলাকারী শিক্ষক নীলমনি সরকারকে মামলার খরচ বাবদ পাঁচ হাজার টাকা দেবারও নির্দেশ দেন বলে জানা যায়। পাশাপাশি ব্যাংক কর্তৃপক্ষকেl আদালত নির্দেশ দেয় আর কোন ভাবেই শিক্ষক নীলমণি সরকারের ব্যাংক একাউন্ট থেকে ঋণ ফেরত বাবদ আর টাকা কাটা না হয়।

 

হেমতাবাদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নীলমণি সরকার এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন আদালতের রায়ে তিনি ভীষন খুশি।তবে বঙ্গীয় বিকাশ ব্যাংকের আইনজীবী পল্লব দাস বলেন প্রয়োজনে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাবেন। প্রধান শিক্ষক নীলমণি সরকার বলেন তিনি দেড় দশক পূর্বে হেমতাবাদের বঙ্গীয় গ্রামীন বিকাশ ব্যাংক থেকে ৬ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছিলেন।তিনি বলেন ব্যাংকের সাথে চুক্তি মত তার ঋণের জন্য প্রতি মাসে ৬০০০ টাকা করে তার একাউন্ট থেকে কিস্তি ব্যবহার কেটে নেওয়ার কথা।কিন্তু ব্যাংক কর্টিপক্ষা ২০১৬ সালের আগস্ট মাস থেকে মামলাকারির একাউন্ট থেকে প্রতি মাসে ৬৯০০টাকা করে কিস্তির টাকা কেটে নেয়। জানা যায় বর্তমানে ব্যাংকের কাছে ঋণ ফেরতের টাকা বাবদ মামলাকারীর ৫১ হাজার টাকা জমা আছে।অথচ ব্যাংক কর্তপক্ষ আদালতকে একটি চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয় মামলকারির নিকট ব্যাংক ৬২ হাজার ৫৭৯ টাকা পাবে বলে জানিয়েছে। জানা যায় মামলাকারি প্রধান শিক্ষক নীলমনি সরকারের আইনজীবী হয়ে কাজ করেছেন আইনজীবি জয়ন্ত কুমার ব্যানার্জী,বাপ্পা সাহা এবং অমৃত সরকার। জানা যায় হেমতাবাদ আদর্শ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নীলমনি সরকার গত ২০১৯ সালের ১১ ই জুন এই মামলাটি হেমতাবাদের বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে এই মামলাটি করে ছিলেন বলে জানা যায়। দিয়ে জানিয়ে দেয় মামলকারির নিকট ব্যাংক ৬২ হাজার ৫৭৯ টাকা পাবে বলে জানিয়েছে। জানা যায় মামলাকারি প্রধান শিক্ষক নীলমনি সরকারের আইনজীবী হয়ে কাজ করেছেন আইনজীবি জয়ন্ত কুমার ব্যানার্জী,বাপ্পা সাহা এবং অমৃত সরকার। জানা যায় হেমতাবাদ আদর্শ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নীলমনি সরকার গত ২০১৯ সালের ১১ ই জুন এই মামলাটি হেমতাবাদের বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে এই মামলাটি করে ছিলেন বলে জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *