April 21, 2024

কালিয়াগঞ্জ শহরকে গ্রীন শহরে পরিণত করতে পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

1 min read

কালিয়াগঞ্জ শহরকে গ্রীন শহরে পরিণত করতে পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

তন্ময় চক্রবর্তী  কালিয়াগঞ্জ শহরকে গ্রীন সিটি করার লক্ষ্যে এবার একধাপ এগিয়ে গেল কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা। পাশাপাশি শহরের সৌন্দর্যায়নে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। আজ তারি লক্ষ্যে পৌরসভার উদ্যোগে বিভিন্ন ধরনের গাছ দিয়ে একদিকে যেমন পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করতে বৃক্ষরোপণ করা হলো তেমনি শহরের প্রণবানন্দ স্কুলের মোড় থেকে ধনকৈল মোড় পর্যন্ত রাস্তার ডিভাইডারে রোপন করা হলো বিভিন্ন ধরনের পাতা বাহারি গাছ যেমন, তেমনি বিভিন্ন ফুলের গাছ।

উল্লেখ্য কালিয়াগঞ্জ শহরের বিভিন্ন জায়গায় উন্নয়নমূলক কাজ করতে গিয়ে অনেক বড় বড় গাছ কেটে ফেলা হয়েছে এর ফলে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে যখন সাধারণ মানুষদের তখন কয়েকশো গাছ লাগিয়ে এবার পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করতে নতুন ভাবে সংকল্পবদ্ধ হলো পৌরসভা।

আজ এক অনারম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই বৃক্ষরোপন কর্মসূচিতে বৃক্ষরোপণ করলেন কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার পৌরপতি রাম নিবাস সাহা উপ-পুর পৌরপতি ঈশ্বরচন্দ্র রজক সহ পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের কমিশনাররা। তাদেরকে দেখা গেল একত্রে একটি একটি করে গাছ হাতে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বৃক্ষরোপণ করতে।

 

এক সাক্ষাত্কারে পৌরসভার পৌরপতি রাম নিবাস সাহা জানান, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করতে গাছ এর কোন বিকল্প নেই । তাই গাছ লাগিয়ে এবার শহরকে সবুজয়ান করতে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি তিনি এও বলেন শহরের উন্নয়নমূলক কাজ করতে গিয়ে অনেক বড় বড় গাছ কেটে ফেলা হচ্ছে তাই গাছের চাহিদা মেটাতে তারা কয়েকশো গাছ শহরে লাগানোর উদ্যোগ নিয়েছেন। তিনি বলেন এর আগে দেখা গিয়েছে  গাছগুলি যত্ন না করার ফলে অনেক সময় দেখা যায় সেই  গাছগুলি মরে যায়।

 

এবার সেই সমস্যাও আর থাকবে না কারণ পৌরসভা গাছগুলি দেখভাল করার জন্য লোক নিয়োগ করে সেগুলোকে দেখাশোনার দায়িত্ব নিবে। তিনি বলেন শহরের উন্নয়নমূলক কাজ করার ক্ষেত্রে যত গাছ কাটা হয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি গাছ তারা শহরের বিভিন্ন জায়গায় লাগাবেন। তিনি বলেন এই কাজগুলি তাদের কে অনুদান হিসেবে দিয়েছেন পৌরসভার প্রাক্তন কমিশনার তারা প্রসাদ।

 

তাই তাকে পৌরসভার পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। এর পাশাপাশি কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার উপ পৌর পতি ঈশ্বর চন্দ্র রজক বলেন, একটি গাছ একটি প্রাণ। এটা সকলেরই জানা। কিন্তু উন্নয়নমূলক কাজ করতে গেলে অনেক সময় অনেক গাছ কাটতে হয়। আর তাই একটি গাছ যদি কাটা হয় তার পাশাপাশি দুটি করে গাছ লাগানোর প্রতিশ্রুতি তারা দিয়েছিলেন আজ সেই প্রতিশ্রুতি তারা অক্ষরে অক্ষরে পালন করলেন। এদিনের এই বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন পৌরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসার বিকাশ রায় সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কমিশনাররা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *