April 20, 2024

কে বলেছে পঞ্চায়েত প্রধান মানেই পেল্লায় বাড়ি, টোটো চালান ইটাহারের সুখেন দেবশর্মা

1 min read

কে বলেছে পঞ্চায়েত প্রধান মানেই পেল্লায় বাড়ি, টোটো চালান ইটাহারের সুখেন দেবশর্মা

বিপ্লব চাকি পঞ্চায়েতের প্রধান, উপপ্রধান মানেই হৈ হৈ ব্যাপার। যিনি আগে অন্যের কাছে বিড়ি চেয়ে খেতেন, এখন পেল্লায় বাড়ি। দামি গাড়ি। এমন দৃষ্টান্ত রাজ্যজুড়েই ভুরি ভুরি রয়েছে।আবার উল্টো দৃষ্টান্ত নেই এমন নয়। যেমন উত্তর দিনাজপুরের ইটাহারের সুরু‌ন-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সুখেন দেবশর্মা টোটো চালান। সেটিও কিনেছেন লোন নিয়ে। কেনার পেছনেও রয়েছে একটা ইতিহাস। তা হল, উনি আদপে রঙের মিস্ত্রি। লোকজনের বাড়িতে রং করে সংসার চালাতেন। পঞ্চায়েতের উপপ্রধান হওয়ার পর আর সে সূযোগ মেলে না। কারণ, এখন পঞ্চায়েতে যেতে হয়। দলের মিটিং, মিছিলে যেতে হয়। তাতে অনেক সময় চলে যায়। সুখেনবাবুর কথায়, ‘‘লোক টাকা খরচ করেরং করবে।

 

প্রত্যেকেই চান তাঁর বাড়ি রং এর কাজ দ্রুত শেষ হোক। আমি রং এর কাজ ধরে মিটিং, মিছিল করে বেড়াব, লোকে তা সহ্য করবে কেন? তাই বাধ্য হয়ে সে কাজ ছাড়তে হয়েছে।’’রং মিস্ত্রি মানেই দামি লোক। এটা সকলের জানা। আয়ও বেশি। কিন্তু সেই কাজ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন দলের জন্য। তাহলে সংসার চলবে কী করে? তখন টোটো কেনার কথা ভাবেন। ব্যাঙ্কের সঙ্গে যোগাযোগ করে লোনের ব্যবস্থা করেন। সুখেনবাবু বলেন, ‘‘এটা স্বাধীন ব্যবসা। যখন অফিস নেই, দলের মিটিং-মিছিল নেই, টোটো নিয়ে বেরিয়ে পড়লাম। কারও কিছু বলার নেই।’’

 

তিনি জানান, টাকা তো রোজগার করতে হবে। বাড়িতে মা রয়েছেন। বোন রয়েছে। বাবা হেমন্ত দেবশর্মার মৃত্যুর পর মা সোনালী দেবশর্মা এক ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে বেলুল গ্রামে বসবাস করেন। বাড়ির হালও ভালো নয়। ইঁটের গাঁথনি হলেও রং করা তো দূরের কথা প্লাস্টারও করতে পারেননি। টিনের ছাউনি দিয়ে থাকা।অথচ ২০১৮ সালে সুখেন দেবশর্মা তৃণমূলের প্রতীকে বেলুল গ্রামের পঞ্চায়েত সদস্য নির্বাচিত হয়ে উপপ্রধান হন। কিন্তু অবস্থার খুব একটা বদল ঘটেনি। তাঁর কথায়, ‘‘একটা ভাতা পাই। আর টোটো চালিয়ে কিছু রোজগার। তা দিয়ে সংসার চলে যায়।’’বর্তমানে পঞ্চায়েত প্রধানদের পেল্লায় বাড়ি নিয়ে চলছে জোর চর্চা। তা নিয়ে পশ্চিম বর্ধমানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সে প্রসঙ্গ তোলেন। সেখানে ঝর্ণা রায় নামে এক পঞ্চায়েত প্রধানের কথাও উল্লেখ করেন। যিনি পরিচারিকার কাজ করেন। খারাপ দিক তুলে ধরার পাশাপাশি এই ধরণের পঞ্চায়েতের কর্মকর্তাদের কথাও তুলে ধরার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। এমন যে নেই তাও নয়। এমন উদাহরণ আরও রয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *