July 20, 2024

কথায় বলে “চায়ের সাথে টা ফ্রি” বাস্তবে দেখতে পাবেন চায়ের দোকানে এলে।

1 min read

কথায় বলে “চায়ের সাথে টা ফ্রি” বাস্তবে দেখতে পাবেন চায়ের দোকানে এলে।

নদীয়া :- কোন চায়ের দোকানে মানুষ চা খেতে আসবে এটাই তো স্বাভাবিক, কিন্তু চায়ের সাথে কাপ খেতে দলে দলে মানুষ আসছেন চায়ের দোকানে। এমনই এক ঘটনা দেখা গেল নদীয়ার শান্তিপুরের এক চা ব্যবসায়ীর দোকানে । এখানে মানুষ আসছেন চায়ের সাথে কাপও খেতে। আর এই চা খেতেই লাইন দিয়েছেন দোকানের সামনে আট থেকে আশি সকলেই। শান্তিপুরের “মথুরার চা” নামে পরিচিত এই দোকান। দোকানদারের নাম মথুরা কর্মকার। প্রায় নয় বছর ধরে এই চায়ের দোকানের সাথে যুক্ত ।

 

এই চায়ের দোকানের উপরে নির্ভর সংসার । জানা যায় এক সময় পৌরসভার অস্থায়ীভাবে জল সরবরাহ কেন্দ্রে কাজ করতেন। কিন্তু কাজ হারানোর পর মাথায় হাত কিভাবে সংসার চালাবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। সেরকম অর্থ নেই যে ব্যবসা করবেন। এরপর স্থানীয় বাসিন্দাদের এবং বন্ধুদের সহযোগিতায় বাড়ির সামনের খুলে বসলেন চায়ের দোকান। মথুরা বাবুর প্রথম থেকেই ইচ্ছে ছিলো, নতুনত্ব কিছু করার , তাই মোবাইলে ইউটিউব থেকে দেখতে পান যে জোয়ার, বাজরা, রাগীর মত শস্য দানা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে চায়ের কাপ ।

 

এই কাপের মধ্যে রয়েছে বিস্কুটের উপকরণ কিন্তু এই কাপ পাওয়া যায় দক্ষিণ ভারতে। যদিও কলকাতার ব্যবসায়ীরা অর্ডার দিয়ে নিয়ে আসেন দক্ষিণ রাজ্য থেকে। মথুরা বাবু খোঁজ নিয়ে কলকাতা থেকে নিয়েছেন এই কাপ। তার কথায় নয় বছর ধরে চা বিক্রি করছি মাটির কাপে। কিন্তু এখন ওয়াটার বিস্কুটের কাপে চা বিক্রি করার কারণে অনেকেই আছেন চা খেতে। শান্তিপুর তো বটেই, বাইরের মানুষও আসছেন এখানে এই চায়ের সাথে কাপেরও স্বাদ নিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *