December 7, 2022

দেহাবন্দের ঘটনার ২৪ঘন্টা পরেও আতঙ্ক কমেনি এলাকা বাসীর

1 min read



                           

মামুন সরকার ,,দক্ষিণ দিনাজপুর ::   দেহাবন্দের ঘটনার ২৪ঘন্টা পরেও আতঙ্ক কমেনি এলাকা বাসীর ।দেহাবন্দের  ঘাটপাড়ার মানসিক ভারসাম্যহীন আদিবাসীর  মহিলার গণধর্ষণের  ঘটনায় উত্তপ্ত দুই দিনাজপুর  গত কাল থেকে বাড়ি ছাড়া ওই এলাকার কিছু পরিবার আতঙ্কে এখনো সাধারণ মানুষ ।গত কালকে বিক্ষুব্দ  আদিবাসীরা ৪টি বাড়ি জ্বালিয়ে দেয় এবং তাদের আরো  টার্গেট ছিল  উত্তর দিনাজপুর ইটাহার থানার পতিরাজপুর এলাকার অভিযুক্ত আন্ধারু বর্মনের  বাড়ি  জ্বালিয়ে দেওয়ার কিন্তু গত কাল তা আর হয়নি তাই আজ আবারো এরকম হতে পারে  বলে অনুমান ছিল পুলিশের সেই কারণে প্রচুর পুলিশ ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে ওই এলাকায় আন্ধারু বর্মন নের বাড়ির আসে পাশের মানুষ আতঙ্কে এখনো বাড়ি ছাড়া ।কুশমন্ডি থানার পুলিশ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার দেহাবন্দ এলাকায় আর উত্তর দিনাজপুর জেলার পুলিশ পতিরাজপুর এলাকায় এখনো মোতায়েন রয়েছেন এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না বহিরা গতদের ।
                                        
ঘটনার ২৪ঘণ্টা কেটে গেলেও আতঙ্ক  কমেনি মানুষের  এখনো থমথমে এলাকা চারিদিকে পুলিশ ,,তবে বাকি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে আরো আন্দোলন হবে বলে জানিয়েছেন আদিবাসীরা ।সাধারণ মানুষের অভিযোগ গত কাল জ্বালিয়ে দেওয়া হয় অভিযুক্ত রাম প্রবেশের শর্মার বাড়ি তার সাথে তার ভাই ও দাদার বাড়ি জালিয়েছেন আদিবাসীরা  অভিযুক্ত রাম প্রবেশ শর্মা তাই তার শাস্তি হোক সেটা আমরাও চাই  কিন্তু ওর দাদা ভাই কি করেছে  ? তাদের বাড়ি আদিবাসীরা জালিয়েছেন কেন ? 
                                     
তাদের সংসার খুব কষ্ঠের সবারি বাড়িতে ছেলে মেয়ে রয়েছে দিন এনে দিন খাই কিন্তু রাম প্রবেশের কারণে তাদের কেন এই শাস্থি  এখন তাদের মাথা গুজার ঠাঁই নেই ।অপরাধীর শাস্থি হোক আমরা চাই কিন্তু নিরোপরাধীর শাস্থি কেন ?গত কাল পুলিশ প্রশাসন জেনেছিলো তবুও নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে ।তবে আজ কেন এত ফোর্স ?  লোক দেখানোর জন্য নাকি সাধারণ মানুষকে আতঙ্কে রাখার জন্য ? এমনিঅভিযোগ করেন ইস্থানীওড়া ।তবে পুলিশের ওপর আর কোনো আস্থা নেই বলেও জানিয়েছেন তারা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *