December 2, 2022

এক ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনা রনক্ষেত্রের চেহারা নিল রায়গঞ্জ শহরের শিলিগুড়ি মোড়ে

1 min read

মৃত ছাত্র 

তন্ময় দাস (বর্তমানের কথা) ঃ   গেটের সামনেই লড়ি চাপা পরে এক ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনা রনক্ষেত্রের চেহারা নিল উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ শহরের শিলিগুড়ি মোড়ে।উত্তেজিত জনতা ভাঙচুর করল ট্রাফিক পুলিশ অফিস, আগুন ধরানোর চেষ্টা লড়িতে।এই ঘটনার জেরে ভাঙচুর হয় বেশ কয়েকটি মোটরবাইক। উত্তেজনা থামাতে কমব্যাট ফোর্সসহ বিশাল পুলিশবাহিনী ।  পুলিশকে লক্ষ্য করে  ইট পাথর উত্তেজিত জনতার। পুলিশও পালটা লাঠি চার্য, গুলি, টিয়ারগ্যাস ছোড়ে। অবরুদ্ধ  হয়ে পড়ে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক ও রায়গঞ্জ -বালুরঘাট ১০ এ রাজ্য সড়ক। মৃত ছাত্রের নাম প্রতিক চক্রবর্তী (১৫)।  সুদর্শনপুর দ্বাড়িকা প্রসাদ উচ্চ বিদ্যাচক্র স্কুলের দশম শ্রেনী ছাত্র। মৃত ছাত্রের বাড়ি রায়গঞ্জের কর্নজোড়া কালিবাড়ি এলাকায়। জানাজায় প্রতিদিনের মতো এদিনও সাইকেল  চালিয়ে স্কুলে আচ্ছিল প্রতিক। রায়গঞ্জের শিলিগুড়ি মোড়েই স্কুলের সামনেই লড়ির চাপা পরে মৃত্যু হয়।স্কুল ছাত্রের পথ দুর্ঘটনায় জনতা পুলিশ খন্ডযুদ্ধ রায়গঞ্জ শহরের 

ভাঙচুর ট্রাফিক পুলিশ অফিস

শিলিগুড়ি মোড়ে।  ট্রাফিক পুলিশের নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলে উত্তেজিত জনতা চড়াও হয় পুলিশের উপর। ভাঙচুর করা হয় পুলিশের ট্র‍্যাফিক কন্ট্রোল অফিস। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।পড়ে পুলিশ ও সাধারন মানুষের প্রায় এই ঘটনার জেরে ভাঙচুর হয় বেশ কয়েকটি মোটরবাইক।ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে পুলিশ সুপার শ্যাম সিং। পড়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। এলাকায় পুলিশ প্রিকেট বসানো হয়েছে।
স্থানীয় মানুষেরা জানান,রাস্তা উচুনিচু থাকার কারনে  রাস্তা দিয়ে যাবার সময় ছাত্রটি পড়ে যায় রাস্তার উপরে সেই সময় লড়ির নিচে চাপা পড়ে যায় ছাত্রটি। এই ঘটনার জেরে রাস্তায় রনক্ষেত্রের আকার ধারন করে। 
রনক্ষেত্রের চেহারা
পুলিশ সুপার শ্যাম সিং জানান, পথ দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘটনা ঘটেছে।  পরিস্থিতি স্বাভাবিক। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।
স্থানীয় মানুষেরা জানান,রাস্তা উচুনিচু থাকার কারনে  রাস্তা দিয়ে যাবার সময় ছাত্রটি পড়ে যায় রাস্তার উপরে সেই সময় লড়ির নিচে চাপা পড়ে যায় ছাত্রটি। এই ঘটনার জেরে রাস্তায় রনক্ষেত্রের আকার ধারন করে। 
]] >

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may have missed