December 4, 2022

স্ত্রীকে খুনের অভিযোগে পুলিশ শেষ পর্যন্ত মৃত বধূর সিভিক ভলান্টিয়ার স্বামীকে গ্রেফতার করল

1 min read
রতুয়া,মালদা, (বর্তমানের কথা) ঃ  স্ত্রীকে খুনের অভিযোগে পুলিশ শেষ পর্যন্ত মৃত বধূর সিভিক ভলান্টিয়ার স্বামীকে গ্রেফতার করল ৷বুধবার সকালে ওই সিভিক ভলান্টিয়ারকে গ্রেফতার করে রতুয়া থানার পুলিশ ৷ ৭ দিনের পুলিশি হেপাজতের আবেদন জানিয়ে ধৃতকে এদিন চাঁচল মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে ৷আদালত 5 দিনের পুলিশি হেপাজতের নিরদেশ দেয়।ঘটনার সূত্রপাত গত ১২ নভেম্বর ৷ সেদিন মাঝরাতে নিজের ঘরে খুন হন রতুয়ার মাকাইয়া গ্রামের বাসিন্দা খুশবু ঘোষ(26)স্বামী সনাতন ঘোষ সিভিক ভলান্টিয়ার ৷ সে রতুয়া থানাতেই কর্মরত ৷ ১৩ নভেম্বর সনাতন পুলিশকে জানায়, আগের দিন মাঝরাতে ১০-১২ জন দুষ্কৃতী তাদের ঘরের দরজায় টোকা দেয় ৷ আওয়াজে দরজা খুলে দেয় সে ৷ তখনই দুষ্কৃতীরা তার উপর হামলা চালায় ৷ সম্প্রতি আড়াই বিঘা জমি নিয়ে তার সঙ্গে এলাকারই সুকলাল সাহা ও ভবেশ মহালদারের ঝামেলা চলছিল ৷ দুষ্কৃতীরা সেই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য তাকে হুমকি দেয় ৷ তারা তাকে একটি সাদা কাগজে স্বাক্ষর করাতে চাইছিল ৷ খুশবু সেই কাগজ ছিঁড়ে ফেলায় তার স্ত্রীর পেটে চাকু ঢুকিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা ৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার স্ত্রীর ৷ এই ঘটনায় সে এলাকার বাসিন্দা ভবেশ মহালদার সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করে ৷পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার তদন্তে উঠে আসে চানচল‍্যকর তথ‍্য৷ গত ২৭ ডিসেম্বর পুলিশ খুশবুর ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পায় ৷ সেই রিপোর্ট খতিয়ে দেখেই মাথায় হাত পড়ে পুলিশের ৷ ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী, ১২ নভেম্বর রাত ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে খুশবুকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছিল ৷ তার অন্তত দু’ঘণ্টা পর তাঁকে কোপানো হয় ৷ এরপরেই পুলিশি তদন্তের নয়ামর৷ জানা যায়, সনাতনের সঙ্গে তার শ্যালিকার অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে ৷ অনুসন্ধান চালিয়ে পুলিশ জানতে পারে, সেই সম্পর্ক নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে প্রায়শই ঝামেলা হত সনাতনের ৷ এরপরেই পুলিশ এদিন সকালে সনাতনকে গ্রেফতার করে ৷ যদিও একনও সনাতনের দাবি, সে খুশবুকে খুন করেনি ৷ জমি বিবাদের জেরে দুষ্কৃতীরাই তার স্ত্রীকে খুন করেছে ৷ এদিকে ভবেশ মহালদারের স্ত্রী জ্যোতিনা মহালদার এদিন বলেন, তিনি নিশ্চিত, সনাতনই তার স্ত্রীকে খুন খুন করেছে ৷ সেই ঘটনার দায় সে তাঁর স্বামীর উপর চাপিয়ে দিয়েছে ৷ পুলিশ সেদিন কোনও কথা না বলে তাঁর স্বামীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় ৷ এই ঘটনার সঙ্গে জমি বিবাদের কোনও সম্পর্ক নেই বলে দাবি করেছেন তিনি ৷ছবি ও তথ‍্য-পান্না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *