December 9, 2022

নির্বাচনের মুখে কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়ায়

1 min read

রোনাক কুমার যাদব, (ইসলামপুর)ঃনির্বাচনের মুখে কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে রাজনৈতিক
সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়ায়। এই ঘটনার জেরে
এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। 

এই ঘটনায় আহত হয় দুই তৃণমূল কর্মী। বোমা ও গুলির
আঘাতে আহত দুই তৃণমূল কর্মীকে উদ্ধার করে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা
হয়েছে সেখানে তারা চিকিৎসাধীন। সুধু তাই নয় এই
  সংঘর্ষ চলাকালীন এক ব্যক্তির মৃত্যুকে ঘিরে আরও
উত্তপ্ত হয়ে উঠলো পরিস্থিতি। দাশপাড়া এলাকার বাসিন্দা
  সংঘর্ষ
চলাকালীন পালাতে গেলে মৃত্যু হল
  বৈশাখু কর্মকার (৫৫) নামে ওই ব্যক্তির আতঙ্কে তার মৃত্যু হয় বলে
এলাকা সূত্রে প্রকাশ। 

পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। পুলিশ
একটি তাজা বোমা উদ্ধার করে।
  অভিযোগ তৃনমূল কর্মিরা যখন চোপড়ার বিধায়ক হামিদুল রহমানের বাড়ি
যাচ্ছিল সেই
  পথে তৃণমূল কর্মীদের উদ্দেশ্য করে গুলি বোমা ছোড়ে কংগ্রেস বলে
অভিযোগ ।
  এই ঘটনায় আহত
হয় দুই তৃণমূল কর্মী। বোমা ও গুলির আঘাতে আহত দুই তৃণমূল কর্মীকে উদ্ধার করে
ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে সেখানে তারা চিকিৎসাধীন।
  জানা গেছে, চোপড়ার লক্ষ্মীপুর
গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সহ অন্যান্য তৃণমূল কর্মীরা চোপড়ার
বিধায়ক হামিদুল রহমানের বাড়িতে যাচ্ছিল। অভিযোগ লক্ষ্মীপুর বাজারের কাছে কংগ্রেস
আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি বোমা ছুড়ে হামলা করে। ছড়রা বন্দুকের
গুলিতে আহত হন দুই তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী। বোমা ছুড়ে মারার অভিযোগও উঠেছে কংগ্রেসের
বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয় ওই এলাকায়। খবর পেয়ে
ঘটনাস্থলে ছুটে আসে চোপড়া থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। একটি বোমা ও বেশকয়েকটি মোটর
বাইক আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ
পঞ্চায়েত
  নির্বাচনে  সাধারন
মানুষের আর্শিবাদ নেই তাদের দিয়ে । তারা নির্বাচনে হেরে যাবে বলেই এই ধরণের হামলার
ঘটনা ঘটাচ্ছে কংগ্রেস।এই বিষয়ে কংগ্রেস তরফ থেকে জানান এই সংর্ঘষের পিছনে
কংগ্রেসের কোন হাত নেই। তাদের নিযেদের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বকে লুকানোর জন্য কংগ্রেসের
দিকে অভিযোগ
  তুলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *