November 20, 2022

সুযোগ কাজে লাগানোর ব্যর্থতাতেই এই হার, বললেন কোহলি

1 min read
(বর্তমানের কথা)ঃ  দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ছয় ম্যাচের সিরিজ ৪-০ জিতে নেওয়ার সুযোগ হাতছাড়া হয়েছে ভারতের। সিরিজ জয়ের জন্য বাকি দুটি ম্যাচে অনন্ত একটি জয়ের জন্য তাকিয়ে থাকতে হবে মেন ইন ব্লু-কে। সিরিজের আগের তিনটি ম্যাচের মতোই ভারত চতুর্থ ম্যাচেও বাগে পেয়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকাকে। কিন্তু শেষপর্যন্ত  সিরিজে টিকে রইল দক্ষিণ আফ্রিকা। জয়ের সুযোগ হাতছাড়া হওয়ায় আক্ষেপ অধিনায়ক বিরাট কোহলির। তিনি বলেছেন, খেলায় সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। তা কাজে না লাগাতে না পারায় ম্যাচ হাতের বাইরে চলে যায় ভারতের।
গতকালের বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে খেলা ফের শুরু হওয়ার পর ২৮ ওভারে ২০২ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে খেলতে নেমে একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকা। জেপি ডুমিনি, আমলা আর ডি’ভিলিয়ার্সের উইকেট হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর তখন ৪ উইকেটে ১০২ রান। ডিভিলিয়ার্স যখন আউট হন তখন ৬৭ বলে জয়ের জন্য ১০০ রানের দরকার ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। পরের ওভারেই যজুবেন্দ্র চাহলের বলে ডিপ স্কোয়ার লেগে ডেভিড মিলারের ক্যাচ মিস করেন শ্রেয়স আয়ার। তখন মিলার ৬ রানে ব্যাট করছিলেন। ওই ওভারেই মিলার সুইপ করতে গিয়ে বল ফস্কান। বল স্ট্যাম্প ভেঙে দেয়। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায়, চাহল নো বল করেছেন।
এরপর আর থামানো যায়নি মিলারকে। হার্দিক পান্ড্যর ওভারে পরপর তিনটি বলে বাউন্ডারি মারেন তিনি। হেইরিখ ক্লাসেনের সঙ্গে জুটিতে ৭২ রান যোগ করেন মিলার। তিনি ব্যক্তিগত ৩৯ রানে আউট হলেও ক্লাসেন ২৭ বলে ৪৩ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন তিনিই। ১৫ বল বাকি থাকতেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা।
চতুর্থ একদিনের ম্যাচে বৃষ্টি একটা বড় ভূমিকা নিয়েছে। ৩৪.২ ওভারে ভারতের রান যখন ২ উইকেটে ২০০ তখন বজ্রপাতের আশঙ্কায় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। শিখর ধবন ওই সময় ১০৭ রানে অপরাজিত ছিলেন।
ফের খেলা শুরু হওয়ার পর আর মাত্র ২ রান যোগ করে ফিরে যান ধবন। ওই পর্বে ৮৯ রানে পাঁচটা উইকেট হারায় ভারত। শেষপর্যন্ত ভারত করে সাত উইকেটে ২৮৯ রান। প্রত্যাশার তুলনায় কিছুটা দূরেই থামতে হয় ভারতকে।
বজ্রপাত সহ বৃষ্টির ফলে দ্বিতীয়বার খেলা বন্ধ হওয়ার সময় দক্ষিণ আফ্রিকার রান ছিল ৭.২ ওভারে ৪৩। খেলা শুরুর পর তাদের প্রয়োজন ছিল ২০.৪ ওভারে ১৫৯ রান। হাতে নয় উইকেট।
কোহলি বলেছেন, আসলে টি ২০ ম্যাচ হয়ে উঠেছিল। আর আমরা সুযোগ কাজে লাগাতে পারিনি। তাই জয় আসেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *