December 2, 2022

প্রসূতি মায়েদের জন্য অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবার উদ্বোধন করলেন জেলাশাসক আয়েষা রানি এ

1 min read


তন্ময় দাস, বর্তমানের কথা, রায়গঞ্জঃ কয়েক সপ্তাহ আগেই উত্তর দিনাজপুর জেলা সফরে এসে উত্তর দদিনাজপুর জেলায় প্রাতিষ্ঠানিক প্রসবের হার শুনে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবীন্দ্র ভবনে প্রশাসনিক বৈঠকে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দপ্তরকে হুসিয়ারি করেছিলেন প্রসবের হার বাড়ানোর জন্য।সেই দিনই শিশু কল্যাণ দপ্তরের চেয়ারম্যান কেয়া চৌধুরীকে সরিয়ে সেই দ্বায়িত্ব জেলা শাসককে দেন। এর পরেই মুখ্যমন্ত্রীর সেই নির্দেশকে বাস্তবে রুপায়িত কর‍তে তৎপর হয় উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসন।
সরকারি হাসপাতালে প্রসবের হার একশ শতাংশ পূর্ণ করার লক্ষ্যে উত্তর দিনাজপুর জেলার জেলার প্রতিটি ব্লকে এদিন বিনামূল্যে অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু করল উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসন।রায়গঞ্জের কর্নজোড়ায় ফ্ল্যাগ অফ করে প্রসূতি মায়েদের জন্য অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবার উদ্বোধন করলেন জেলাশাসক আয়েষা রানি এ। তিনি জানান,”এখন থেকে ১০২ নম্বরে ডায়াল করলেই মাত্র ২৫ মিনিটের মধ্যে সন্তান সম্ভবা প্রসূতির বাড়িতে পৌঁছে যাবে জিভিকে লেখা বেসরকারি সংস্থার অ্যাম্বুলেন্স। সঙ্গে থাকবেন একজন মহিলা স্বাস্থ্যকর্মীও।জেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে প্রসূতিদের নিয়ে সরকারি হাসপাতাল বা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়ার জন্যই উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের এই উদ্যোগ। ১০২ নম্বরে ফোন পেলেই জিপিআরএস এর ম্যাধমে প্রসূতির বাড়ি খুঁজে নেবে অ্যাম্বুলেন্স। বিনামূল্যে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সন্তান প্রসবের পর হাসপাতাল থেকে বাড়িতেও পৌঁছে দেওয়া হবে।” তিনি আরও বলেন, “শুধুমাত্র প্রসূতিইই নয়,শুন্য থেকে এক বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদেরও চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্যা হলেও এই ১০২ নম্বরে ডায়াল করলেই হাসপাতাল বা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যাওয়ার জন্য বিনামূল্যে এই অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা পাওয়া যাবে। জেলা প্রশাসনের এই উদ্যোগে সরকারি হাসপাতালে প্রসবের হার বৃদ্ধির পাশাপাশি শিশুমৃত্যুর হারও কমানো যাবে বলেই মনে করছেন সকলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *