March 2, 2024

আবারো মানবিকতার পরিচয় দিল রায়গঞ্জে পুলিশ

রায়গঞ্জ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী শৈলেশ বর্মণ অ্যাডমিট কার্ড ছাড়াই পরীক্ষা কেন্দ্রে গিয়েছিল । এরপর তাঁকে মোটরবাইকে চাপিয়ে বাড়ি নিয়ে যায় পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে । তারপর ফের শৈলেনকে পুলিশ   পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছে দেয় বাড়ি থেকে অ্যাডমিট কার্ড সহ  । ফলে শৈলেন পরীক্ষায় বসতে পেরেছে  নির্ধারিত সময়েই । উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে সুদর্শনপুর দ্বারিকা প্রসাদ উচ্চ বিদ্যাচক্র স্কুলের এই  ঘটনাটি ।

মানবিকতার পরিচয় দিল রায়গঞ্জে পুলিশ
জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষা ছিল আজ মাধ্যমিকের । কর্ণজোরা হাইস্কুলের ছাত্র শুশিহার গ্রামের বাসিন্দা শৈলেশ । সুদর্শনপুর দ্বারিকা প্রসাদ উচ্চ বিদ্যাচক্র স্কুলে তার পরীক্ষার সিট পড়েছিল । তার কাছে অ্যাডমিট কার্ড নেই পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছে সে দেখে ।এর পর কান্নায় ভেঙে পড়ে শৈলেশ ।এদিকে, স্কুল থেকে তার বাড়িও বেশ কিছুটা দূরে। 


পুলিশের ট্র্যাফিক কন্ট্রোল অফিসের সামনে এসে এক পুলিশ কর্মীকে শৈলেশ বিষয়টি জানায়। ওই পুলিশ কর্মী তাকে রায়গঞ্জ থানার ট্র্যাফিক অফিসার পিনাকী সরকারের কাছে নিয়ে যান। পিনাকীবাবু এক সিভিক ভলান্টিয়ারকে নির্দেশ দেন শৈলেশকে মোটরবাইকে চাপিয়ে তার বাড়ি নিয়ে যেতে এবং সেখান থেকে অ্যাডমিট কার্ড নিয়ে আসতে। এরপর সুরজিৎ গোস্বামী নামে ওই সিভিক ভলান্টিয়ার শৈলেশকে মোটরবাইকে চাপিয়ে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর শৈলেশ পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছায় অ্যাডমিট কার্ড নিয়ে সেই পুলিশের বাইকে চেপেই । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *