December 4, 2022

নয়াবাজারের সাহিত্য সন্ধ্যায় এক ঝাঁক নবীন ও প্রবীনদের মেল বন্ধন ঘটলো—জয়ন্ত আচার্য

1 min read
 

 সোমবার  ঝলমলে বাসন্তী সন্ধ্যায় একঝাঁক কবি,সাহিত্যিক,প্রাবন্ধিককে নিয়ে এক সাহিত্য সভায় মেতে উঠলেন সবাই ৷ 
গঙ্গারামপুরের নয়াবাজারে কবি অজিত ঘোষের বাড়িতে এদিন উপস্থিত ছিলেন বর্ষীয়ান সাহিত্যিক ব্যোমকেশ সিংহ, সাহিত্যিক সুকুমার সরকার, কালিয়াগঞ্জ থেকে আসা রাজকুমার জাজোদিয়া, অরুন দাস ,প্রদীপ কুমার রায়, জয়ন্ত আচার্য, দেবজ্যোতি কাজল, অনাথ বন্ধু মাহাতো, অনিন্দিতা দাশ চক্রবর্তী, মহ্নয়া আইচ,অর্চনা ঘোষ , সুজয় সাহা , আলপনা ঘোষ ,রত্না  আচার্য , রিয়া সাহা , পূজা দাস প্রমুখ ৷
অনুষ্ঠান শুরু হয় বিকেল ৪টে তে শেষ রাত্রি ৮ টা ১০ মিনিটে ৷শুরুতে উপস্থিত বর্ষীয়ান সাহিত্যিক ব্যোমকেশ সিংহ মহাশয়কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয় ৷ তিনি তাঁর কাব্যগ্রন্থ “শতাব্দীর শঙ্খ” থেকে ‘শাশ্বত অধিকার’, ‘দীপ জ্বালো’ ‘শাহজাহান হাসছে; শাহজাহান কাঁদছে’ –এই তিনটি কবিতা আবৃত্তি করেন ৷
 অন্যদিকে অনিন্দিতা দাশ চক্রবর্তী পাঠ করেন ষ্টিফেন্স হকিন্সকে নিয়ে লেখা তাঁর কবিতা “হকিন্স” ৷ প্রদীপ কুমার রায় ছোটদের জন্য লেখা ছন্দে বদ্ধ নাটক “গাছ লাগাও ; প্রাণ বাঁচাও” পাঠ করে শোনান ৷ কবি দেবজ্যোতি কাজল পাঠ করেন তার কবিতা “শেরপুরের জন্য” ৷ 
সাহিত্যিক সুকুমার সরকার বেদের উৎপত্তির সময়কাল নিয়ে আলোচনা করেন ৷ লেখক রাজকুমার জাজোদিয়া গঙ্গারামপুর নামের উৎপত্তি সম্বন্ধে বলেন ৷ কবি অনাথ বন্ধু মাহাতো পাঠ করেন তাঁর কবিতা , ‘বঙ্গসাহিত্য’ ৷ শিক্ষক  জয়ন্ত আচার্য তার বহু প্রশংশিত অনুগল্প “একবিংশ শতাব্দী” পাঠ করে উপস্থিত সকলের মন জয় করেন ৷
 অজিত ঘোষের বর্তমান সমাজের রূপরেখায় লেখা অনুগল্প “প্রতিযোগিতা” সবাইকে ভাবিয়ে তোলে। মহুয়া আইচের সঙ্গীত অনুষ্ঠানে অন্য মাত্রা এনে দেয় ৷ সব শেষে আশার বাণী  শোনান সাহিত্যিক সুকুমার সরকার -‘আগামি দিনে গঙ্গারামপুরে মাঝে মাঝে এমন সভা হবে ‘ ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *