December 5, 2022

বাবা-ছেলে, শ্বশুর-জামাই, মামা-ভাগ্নার হবে লড়াই দক্ষিণ দিনাজপুরে পঞ্চায়েত নির্বাচনে

1 min read
বাবা-ছেলে, শ্বশুর-জামাই, মামা-ভাগ্নার হবে লড়াই দক্ষিণ দিনাজপুরে পঞ্চায়েত নির্বাচনে গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে বিভিন্ন আসনে ।
এদের কেউ মনোনয়ন জমা করেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে
, কেউ আবার বিজেপির হয়ে। কেউ এবারই প্রথম প্রার্থী, কারোর আবার পূর্ব অভিজ্ঞতাও রয়েছে। জনসমর্থন আদায়ে মনোনয়ন জমা করেই এঁরা
প্রচারের ময়দানে নামার প্রস্ততি নিচ্ছেন।

জেলার হিলি ব্লকের বিনশিরা
গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান আরএসপির আঙুর লাহা ফেরুসা সংসদ থেকে মনোনয়ন জমা
করেছেন। এখানে তাঁর ছেলে বিশ্বজিৎ লাহা তৃণমূলের টিকিটে বাবার বিরুদ্ধে প্রার্থী
হচ্ছেন। বাবা ছেলের এমন কর্মকাণ্ডে এলাকায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। যদিও আঙুরবাবু
বলেন
, আমি দীর্ঘদিন থেকে আরএসপি করি।

 দল আমাকে
এবার প্রার্থী করেছে। ছেলে সাবালক। সে কোন দলের হয়ে দাঁড়াবে সেটা তাঁর ব্যক্তিগত
বিষয়। ছেলে বিশ্বজিৎ লাহা বলেন
, গ্রামের উন্নয়ন চাই। তাই
তৃণমূলের প্রতীকে লড়ার জন্য দলের নির্দেশে মনোনয়ন জমা করেছি।
 বালুরঘাট ব্লকের অমৃতখণ্ড গ্রাম পঞ্চায়েতে পণ্ডিতপুর সংসদে জ্যাঠতুতো
শ্বশুর তৃণমূলের প্রার্থী সত্যেন বর্মনের বিরুদ্ধে জামাই নয়ন বর্মন লড়ছেন। জামাই এখানে
বিজেপির প্রার্থী। 

জামাই নয়নবাবু বলে, গত পাঁচ বছরের কোনও উন্নয়ন
এলাকায় হয়নি। তাই ভোটে জিতে এলাকার উন্নয়ন করতে চাই। যদিও শ্বশুরের দাবি
, যথেষ্ট উন্নয়ন হয়েছে। আরও উন্নয়ন হবে। ছবি ধরা পড়েছে তপনের হজরতপুর গ্রাম
পঞ্চায়েতের কড়ই চেঁচড়া গ্রাম সংসদে। 

এখানে ছেলে গৌরাঙ্গ বর্মন বিজেপি প্রার্থী।
তাঁর বাবা ধীরেন্দ্রনাথবাবু আরএসপির প্রতীকে লড়বেন। ধীরেন্দ্রনাথবাবু বিজেপির
বিরুদ্ধে রীতিমতো তোপ দেখেছেন। তিনি বলেন
, কেন্দ্রে বিজেপির ভাঁওতা সবাই
জানে। ছেলে বিজেপির প্রার্থী না হলেই পারত। কিন্তু ছেড়ে বড় হয়েছে তাই আমি ওর
ইচ্ছায় হস্তক্ষেপ করিনি। গৌরাঙ্গবাবু বলেন
, বামেদের দীর্ঘ ৩৪ বছর শাসনে
তপনের জলকষ্ট দূর হয়নি। তৃণমূলও পারেনি। আমি জিতে মানুষের সমস্যা মেটাব।
 


বালুরঘাট ব্লকের বোয়ালদার
গ্রাম পঞ্চায়েতের মামা বিজেপি প্রার্থী ক্ষিতিশ পাহানের বিরুদ্ধে ভাগ্না রণ পাহান
তৃণমূলের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছে। এলাকায় মামা ভাগ্নার লড়াই এখন চায়ের দোকান চর্চিত
হয়ে উঠেছে।
 মামা ও ভাগ্নার কথায় এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে সম্পর্ক ঠিক থাকবে। তবে
ভোটের লড়াইতে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়া হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *