April 24, 2024

খেলার মাঠেও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছোঁয়া কালিয়াগঞ্জ এ । ক্ষুব্ধ কালিয়াগঞ্জ এর ক্রিয়া প্রেমী মানুষরা।

1 min read

খেলার মাঠেও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছোঁয়া কালিয়াগঞ্জ এ । ক্ষুব্ধ কালিয়াগঞ্জ এর ক্রিয়া প্রেমী মানুষরা।

তনময় চক্রবর্তী একেই বলে যাকে দেখতে না পারি তার চলন বাঁকা। প্রচলিত সেই প্রবাদ বাক্য আজ আবারো সর্বদা সত্য তে পরিণত হয়েছে কালিয়াগঞ্জ। বরাবরই কালিয়াগঞ্জ এর মানুষ খেলাধুলায় পাগল। কিন্তু সঠিক মাঠ না থাকার দরুন নিয়মিতভাবে খেলাধুলার চর্চা হচ্ছেনা কালিয়াগঞ্জ এ। সেই অভাবকে পূর্ণতা দিয়ে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে শহরের রশিদপুরে শুরু হয়েছে স্টেডিয়াম তৈরীর কাজ। যার কাজ চলছে পৌর প্রশাসক কার্তিক চন্দ্র পালের নেতৃত্বে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় দ্রুতগতিতে। নিয়মিত খেলাধূলা চর্চা করার ক্ষেত্রে বিশেষ করে ক্রিকেট খেলার ক্ষেত্রে ভালো মাঠের খুবই অভাব রয়েছে কালিয়াগঞ্জ এ। একটা সময় কালিয়াগঞ্জ এর রানিং বুলেট ক্লাবের মাঠে ক্রিকেট খেলার কোচিং হতো নিয়মিত ভাবে।

কিন্তু আর্থিক দৈন্য দশা এবং পরিকাঠামোর অভাবে তা দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।কিন্তু কালিয়াগঞ্জের  ক্রীড়ামোদী মানুষের দাবিকে প্রাধান্য দিয়ে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা কালিয়াগঞ্জ থানার সহযোগিতা নিয়ে আবারো সেই ক্রিকেট কোচিং ক্যাম্প এর উদ্যোগ নেয়। যে কোচিং ক্যাম্প শুরু হতে চলেছে আগামী ৫ ডিসেম্বর থেকে। যেখানে সাত থেকে কুড়ি বছর বয়সী উৎসাহী ছেলেমেয়েরা এই প্রশিক্ষণ শিবিরে ক্রিকেট প্রশিক্ষণের জন্য ভর্তি হতে পারবে। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ এর মাধ্যমে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে  নিয়মিতভাবে।

  কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার পৌর প্রশাসক কার্তিক চন্দ্র পাল এর আন্তরিক প্রচেষ্টায় অবশেষে কালিয়াগঞ্জ ক্রিকেট অ্যাক্যাডেমি শুরু হতে চলছে। একদিকে যেমন কালিয়াগঞ্জে ক্রীড়ামোদী মানুষরা ভীষণ আনন্দিত তেমনই এই আনন্দের মাঝেও একটা বিষাদের সুর যেন দেখা যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের আভ্যন্তরীন কোন্দলের জেরে এই  খেলার মাঠেও  । জানা যায় এই ক্রিকেট একাডেমির সভাপতি অসীম ঘোষ আজ একটি লিফলেট বাজারে ছাড়লেন কিন্তু দেখা যাচ্ছে সেই লিফলেটে যার প্রচেষ্টায়  নতুন  করে  কালিয়াগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমি গড়ে  উঠলো সেই কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা প্রশাসক কার্তিক চন্দ্র পাল এর নামই নেই সেই লিফলেটে ।

অথচ এই ক্রিকেট অ্যাক্যাডেমির  বর্তমানে যেখানে পিচ হয়েছে এবং আনুষঙ্গিক পরিকাঠামো গড়ে উঠেছে তার বেশির ভাগটাই কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সহযোগিতায় হয়েছে। অথচ আশ্চর্যজনক ভাবে অসীম বাবু  তার লিফলেট থেকে প্রশাসককে বাদ দিয়ে দিলেন।অনেক  ক্রিয়া  মোদি মানুষরা বলছেন খেলাধুলায় রাজনীতির না আনলে কি হতো না ?  রাজনীতি রাজনীতির জায়গায় হলে  সবচেয়ে ভালো হতো।

আজ  যখন কালিয়াগঞ্জ এর একটি ভালো ক্রিকেট অ্যাক্যাডেমির উদ্বোধন হতে চলেছে সেই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্রাত্য থেকে যাচ্ছেন যার উদ্যোগে এ ক্রিকেট অ্যাক্যাডেমি তৈরি হলো নতুন করে   সেই কার্তিক চন্দ্র পালের নাম। এই ঘটনায় স্বভাবত নিন্দার ঝড় বইছে কালিয়াগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমির সভাপতি অসীম ঘোষের লিফলেট কে কেন্দ্র করে। কালিয়াগঞ্জের  ক্রীড়ামোদী মানুষরা বললেন খেলাধুলায় রাজনীতি না করে সকলে যদি এক হয় কোন একটি ভালো কাজে অংশগ্রহণ করত তাহলে হয়তো ভালো কাজ আরো ভালো হতো এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। জানা যায় আগামী ৫  ডিসেম্বর সকাল দশটায় কালিয়াগঞ্জ হাসপাতাল পাড়ায় অবস্থিত রানিং বুলেট ক্লাবের ময়দানে এই কালিয়াগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমির উদ্বোধন হতে চলছে।

যার  উদ্বোধন করবেন উত্তর দিনাজপুর জেলার পুলিশ সুপার সুমিত কুমার এবং কালিয়াগঞ্জ এর বিধায়ক তপন দেব সিংহ।অনেকে বলছেন এই লিফলেটে যদি অসীমবাবু কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার  পৌর প্রশাসকের নাম দিতেন তাহলে এই ক্রিকেট একাডেমি ষোলোকলা পূর্ণ হয়ে যেত। অর্থাৎ খেলার মাঠ থেকে রাজনীতি দূর হতো। কিন্তু তৃণমূলের অন্দরের  গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে অবশেষে খেলার মাঠে থেকে গেল হাজারো প্রশ্ন বোধক চিহ্ন।তবুও সবকিছুকে উপেক্ষা করে এই ক্রিকেট একাডেমির স্বার্থে আজ সেই মাঠ পরিদর্শন  করে  গেলেন  কালিয়াগঞ্জ এর পৌর প্রশাসক কার্তিক চন্দ্র পাল। মাঠের সংস্কার থেকে  ক্রিকেট খেলার পিচ কেমন  হয়েছে সব কিছু খুঁটিনাটি তিনি দেখে নেন ।আজ তাই  কাজ শেষ মুহূর্তে কেমন কাজ এখানে   তা দেখতে তিনি ছুটে এলেন এই মাঠে । কার্তিক বাবু বলেন কালিয়াগঞ্জে একটা সময় ক্রিকেট কোচিং ক্যাম্প ছিল। কিন্তু কিছু কারণে সেই ক্যাম্প টি বন্ধ হয়ে যায়। কালিয়াগঞ্জ থানা এবং পৌরসভার উদ্যোগে আবার এই ক্রিকেট কোচিং ক্যাম্প শুরু হচ্ছে। তিনি বলেন আগামীতে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে যেখানে স্টেডিয়াম হচ্ছে সেখানে স্বয়ংসম্পূর্ণ ভাবে ফুটবল কোচিং ও ক্রিকেট কোচিং ক্যাম্প এর আয়োজন করা হবে। তিনি বলেন কালিয়াগঞ্জ বরাবরই খেলাধুলায় এগিয়ে ছিল। মাঝে পরিস্থিতির বিচারে একটু থমকে থাকে। এখন আবার সেই জায়গাটা ফিরে পাচ্ছে। এজন্য তিনি সমস্ত ক্রীড়াপ্রেমী মানুষজন আছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *