August 10, 2022

শ্রীমতী নদীকে যেন কালিয়াগঞ্জ পৌর সভা অলিখিত ডাম্পিংস্পট,বানিয়েছে,ক্ষুব্ধ নদী বাঁচাও কমিটি

1 min read

শ্রীমতী নদীকে যেন কালিয়াগঞ্জ পৌর সভা অলিখিত ডাম্পিংস্পট,বানিয়েছে,ক্ষুব্ধ নদী বাঁচাও কমিটি

তপন চক্রবর্তী,কালিয়াগঞ্জ,১৫জুন:নাগরিক সভ্যতার আগ্রাসনে বিপন্ন রাজ্যের নদী। তা থেকে বাদ নেই উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ শহরের লাইফ লাইন শ্রীমতি নদীও।কালিয়াগঞ্জ বালুরঘাট রোডের বালুরঘাট যাবার পথে কালিয়াগঞ্জ শহরের ৬নম্বর ওয়ার্ডের প্রতিটি বাড়ির সমস্ত সংগৃহীত নোংরা আবর্জনা শ্রীমতী নদীকে পৌর সভার ডাম্পিং গ্রাউন্ড মনে করে পৌর সবার সাফাই কর্মীরা প্রতিদিন সকালে শ্রীমতি নদীতে ফেলছে।

এটা প্রতিদিনের দৃশ্য।এলাকার নাগরিকগণ কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের ওয়ার্ড কাউন্সিলর জয়া বর্মন দেব শর্মাকে অভিযোগ জানানো হলেও তাতে কোন কাজ হয়নি বলে এলাকার মানুষ ক্ষুব্দ।শ্রীমতী নদীর বুকে প্রতিদিনের আবর্জনা ফেলায় শ্রীমতি নদী যেমন অস্তিত্ব সংকটে প্রতিনিয়ত ডুবছে অন্যদিকে আবর্জনা দুর্গন্ধে ব্যাপক রোগজীবাণু ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বাড়ছে।

এই সমস্যা সমাধানে কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার হস্তক্ষেপ দাবি করছে এলাকাবাসীরা।কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি কাউন্সিলর গৌতম বিশ্বাস জানান তৃণমূল পরিচালিত কালিয়াগঞ্জ পৌর সভা গত কয়েক মাস ধরে নাগরিক পরিষেবা দিতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। তা না হলে ডাম্পিং গ্রাউন্ড হিসেবে কিভাবে একটি পৌরসভায় নদীকে ব্যবহার করতে পারে? কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার ১০নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি কাউন্সিলর গৌরাঙ্গ দাস বলেন যেখানে গোটা ভারতবর্ষে নদী সংস্কারের কাজ ব্যাপক হারে হচ্ছে সেখানে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা নদীর সংস্কার তো দূরের কথা দূরের কথা নদীকে আরো কিভাবে বুঝে ফেলা যায় তার চেষ্টা করা হচ্ছে।

কালিয়াগঞ্জ নদী ও পরিবেশ বাঁচাও কমিটির সহ-সম্পাদক ডঃ কাঞ্চন দে বলেন কালিয়াগঞ্জ পৌর সভা শহরের ঐতিহ্যবাহী শ্রীমতি নদীর উপর এই ধরনের অত্যাচার কোনভাবেই মানা যাবে না। কালিয়াগঞ্জ নদী ও পরিবেশ বাঁচাও কমিটি খুব শীগ্রই কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার পৌর পিতা রাম নিবাস সাহাকে একটি অভিযোগ দেব ডেপুটেশনের মাধ্যমে।কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জয়া বর্মন দেব শর্মা কে বার বার ফোন করেও তার সাক্ষাৎ পাওয়া যায়নি। এলাকার মানুষের বক্তব্য জয়া বর্মণ কে কোন সময় ফোনে পাওয়া যায় না তিনি নাকি এখন ভিআইপি হয়ছেন।কালিয়াগঞ্জ পৌর সভার পৌর পিতা রাম নিবাস সাহা বলেন ঘটনাটি আমার কানে এসেছে।আমি অবিলম্বে যাতে শ্রীমতী নদীতে পৌর সভার আবর্জনা না ফেলা হয় সে ব্যাপারে নির্দেশ দেওয়া হবে। এছাড়াও উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে এই সমস্যার সমাধান করা যায় সে ব্যাপারে সচেষ্ট হব বলে পৌর পিতা রাম নিবাস সাহা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.