August 9, 2022

দুয়ারে দুয়ারে যাচ্ছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী

1 min read

দুয়ারে দুয়ারে যাচ্ছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী

তন্ময় চক্রবর্তী ঠান্ডা এসি ঘরে বসে নয় , সাধারণ মানুষের অভাব অভিযোগ শুনতে এবার দুয়ারে দুয়ারে যাচ্ছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। নিপীড়িত মানুষের সমস্যা যেখানে,  অভাব যেখানে সেখানেই  পৌঁছে যাচ্ছেন তিনি। সাধারণ মানুষের আশীর্বাদে একের পর এক গ্রামে গিয়ে তিনি পরিত্রাতা ভূমিকা নেওয়ায় খুশি এলাকার মানুষরা। কেউ বৃদ্ধ ভাতা পাচ্ছেন না ,কেউ সরকারি বাড়ি পাচ্ছেন না,  আবার অনেক বেকার যুবক যুবতীরা চাকরি না পেয়ে কর্মসংস্থানের জন্য হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন এদিক-ওদিক । এবার তাদের খোঁজে দুয়ারে দুয়ারে যাচ্ছেন বিধায়ক রায়গঞ্জের কৃষ্ণ কল্যাণী। সভাবত বিধায়কের এখনো উদ্যোগে খুশি রায়গঞ্জ বিধানসভা এলাকার সাধারণ মানুষরা। তিনি উত্তরবঙ্গের বিশিষ্ট শিল্পপতি পিতা প্রয়াত দীনদয়াল কল্যাণী ছিলেন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ। জেলার রাজনীতিবিদদের মধ্যে অন্যতম তরুণ মুখ কৃষ্ণ বাবু।

২০২১ সালে বিধানসভা নির্বাচনে রায়গঞ্জ আসনের প্রার্থী হয়ে বিপরীতে থাকা  রাজনীতিক প্রার্থীদের হারিয়ে সোজা পৌঁছে গিয়েছিলেন বিধানসভায়। তার এই আকস্মিক উত্থানে অবাক হয়েছিল অনেকেই। তবে কৃষ্ণ বাবু যে প্রচুর হোমওয়ার্ক করেই রাজনীতিতে পা রেখেছিলেন তার পরিচয় পাওয়া গিয়েছে সর্বত্র।এবার বিধায়ক হওয়ার এক বছর পূর্তি উপলক্ষে দুয়ারে বিধায়ক কর্মসূচি শুরু করেছেন  বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী।রায়গঞ্জের ৪ নম্বর বাহিন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় এই কর্মসূচিতে অংশ নেন বিধায়ক।

এ দিন কৃষ্ণ বাবু পৌঁছে যান গ্রামবাসীদের ঘরে ঘরে। গত এক বছরে বিধানসভা এলাকায় কি কি উন্নয়ন করেছেন।  কি কি সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দিয়েছেন সে বিষয়ে একটি লিফলেট ও  বিলি করেন এলাকার সাধারণ মানুষদের মধ্যে।

 

বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী বলেন গত এক বছরে কি কি কাজ করেছি তার খতিয়ান এলাকাবাসীদের হাতে তুলে দিয়েছি। কি কি সমস্যা রয়েছে তাও শুনেছি। সেগুলো যাতে দ্রুত সমাধান করা যায় তার চেষ্টা করব। আগামী দিনে বিধানসভার বিভিন্ন এলাকায় এই কর্মসূচি চলবে। এদিনের বিধায়কের কর্মসূচিতে কৃষ্ণ কল্যাণী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সঞ্জয় দত্ত, প্রসূন দত্ত সহ অন্যান্যরা।

উল্লেখ্য নির্বাচনে জয়লাভের পর পেশাদার কর্মীদের নিয়ে রায়গঞ্জের বিধায়ক বোগ্রমে গ্রামে একটি সহায়তা কেন্দ্র খোলেন। সেখান থেকে সাধারণ মানুষদের বিনামূল্যে বিভিন্ন সরকারি পরিষেবা দেওয়ার কাজ শুরু করেন তিনি। পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগে বহু  মানুষের পাশে দাড়িয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। তাই উত্তর দিনাজপুর জেলার মধ্যে ইতিমধ্যে নজর কেড়ে ফেলেছেন তরুণ তুর্কি বিধায়ক উত্তরবঙ্গের বিশিষ্ট শিল্পপতি কৃষ্ণ কল্যাণী। অনেকেই বলছেন যেভাবে বিধায়ক কৃষ্ণ বাবু মানুষের হয়ে কাজ করছেন তা সকলের কাছে একটা নজির সৃষ্টি করে ফেলে দিয়েছেন ইতিমধ্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.