September 3, 2022

আধুনিক মানের পোল্ট্রি ফার্ম তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিলেন উত্তরের বিশিষ্ট উদ্যোগপতি স্বপন সরকার

1 min read

আধুনিক মানের পোল্ট্রি ফার্ম তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিলেন উত্তরের বিশিষ্ট উদ্যোগপতি স্বপন সরকার

 

তনময় চক্রবর্তী, উত্তর দিনাজপুরশিল্প বিহীন উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ এর ভেলাই গ্রামে আধুনিক শিল্প গড়ে তুলে উত্তরের অন্ন দাতা হিসাবে নজির গড়লেন কালিয়াগঞ্জ এর বিশিষ্ট শিল্পপতি স্বপন সরকার। আজ তিনি কালিয়াগঞ্জ এর প্রত্যন্ত একটি গ্রাম ভেলাই এ পঁচিশ বিঘা জমির উপর গড়ে তুললেন আধুনিক মানের একটি পোল্ট্রি ফার্ম । যা এতদঞ্চলে শুধু নয় সমগ্র উত্তর বঙ্গের মধ্যে শিল্পক্ষেত্রে এক নতুন যুগান্তকারী সৃষ্টি হল আজ। আজ সেই আধুনিক মানের শিখা প্রগ্রেসিভ ইন্ডাস্ট্রি প্রাইভেট লিমিটেড নামে পোল্ট্রি ফার্মের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে ছিল চাঁদের হাট।

 

মোমবাতি জ্বালিয়ে এবং রিমোটের মাধ্যমে এই পোল্টি ফার্ম এর উদ্বোধন করেন উত্তর দিনাজপুর জেলার জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মিনা। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদের সভাধিপতি কবিতা বর্মন, কালিয়াগঞ্জ এর বিধায়ক সৌমেন রায়, করণ দীঘির বিধায়ক গৌতম পাল, কুসুমন্ডির বিধায়ক রেখা রায়, ইসলামপুর পৌরসভার পৌরপতি কানাইলাল আগরওয়াল, কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার পৌরপতি রাম নিবাস সাহা উপ পৌরপতি ঈশ্বর চন্দ্র রজক, রায়গঞ্জ পৌরসভার পৌরপতি সন্দীপ বিশ্বাস,

উত্তর দিনাজপুর জেলা শিল্প কেন্দ্রের জেনারেল ম্যানেজার সুনীল সরকার, উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদের কমেন্টর অসীম কুমার ঘোষ, জেলা পরিষদের সদস্য দধি মোহন দেব শর্মা ,  কমল সরকার,  কালিয়াগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি দিপা সরকার, উত্তর দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্সের সাধারণ সম্পাদক শংকর কুন্ডু, কালিয়াগঞ্জ ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক সুনীল সাহা।উল্লেখ্য উত্তর দিনাজপুর জেলা ১৯৯২ সালের ১ এপ্রিল জেলা হিসাবে মর্যাদা পাওয়ার পর দেখতে দেখতে জেলার বয়স ৩০ বছর পেরিয়ে গেছে।

কিন্তু এই ৩০  বছরে জেলায় তেমন কোনো শিল্প-কলকারখানা গড়ে  না ওঠার ফলে জেলার প্রত্যন্ত এলাকার বহু মানুষকে কাজের জন্য ছুটতে হয় ভিন রাজ্যে। এবার সেই সমস্ত মানুষদের কথা চিন্তা করে কালিয়াগঞ্জ তথা জেলার বিশিষ্ট উদ্যোগপতি স্বপন সরকার সরকারি সহযোগিতায় গড়ে তুললেন আধুনিক মানের একটি পোল্ট্রি ফার্ম। যেখানে প্রতিদিন প্রায় দেড়  লক্ষ করে ডিম উৎপাদন  হবে বলে উদ্যোগপতি স্বপন সরকার জানান। তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারে বারে বলেন এই রাজ্যে ডিমের চাহিদা প্রচুর রয়েছে। বাইরের রাজ্য থেকে ডিম এনে এখানে  ডিম এর  ঘাটতি মেটাতে হচ্ছে। এবার সেই মুখ্যমন্ত্রীর কথায় সাড়া দিয়ে এবার ২৫ বিঘা জমির উপর আধুনিক মানের  আধুনিক মানের শিখা প্রগ্রেসিভ ইন্ডাস্ট্রি প্রাইভেট লিমিটেড নামে পোল্ট্রি ফার্মের গড়ে তুললেন ।শ্রী সরকার আরো বলেন এই পোল্ট্রি ফার্মে প্রতিদিন দেড় লক্ষ করে ডিম উৎপাদন হবে। যা জেলা ছাড়িয়ে ভিন জেলাতেও পাড়ি দিবে। তারা আশা এই শিল্প কারখানার মধ্য দিয়ে বহু বেকার ছেলে মেয়েদের একদিকে যেমন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে তেমনি এলাকার এই শিল্পকে কেন্দ্র করে গ্রামীণ এই এলাকার ও উন্নতি ঘটবে।তিনি বলেন যে পল্টি ফার্ম টি ‘ করা হয়েছে সেখানে আজ থেকেই  মুরগির বাচ্চাদের খাইয়ে-দাইয়ে বড় করার পর চার মাস পর থেকে সেই মুরগি থেকে ডিম উৎপাদন শুরু হবে। তিনি বলেন এই আধুনিক মানের পোল্টি ফার্ম কি তৈরি করতে প্রায়  ২০ কোটি টাকার মতন খরচ হচ্ছে। শ্রী সরকার আরো বলেন কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকারের সহযোগিতায় এই ধরনের পোল্ট্রি ফার্ম তিনি করতে পেরেছেন। এই কারখানায় প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে প্রায় ২০০  জন মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে জানান স্বপন বাবু।উল্লেখ্য ইতিমধ্যে উদ্যোগপতি স্বপন সরকার পূর্বে ইটভাটা এবং প্লাইউড কারখানা করে বহু মানুষের কর্মসংস্থান এর পথ তিনি খুলে দিয়েছেন তেমন ই আজ তার পালক কে এই নতুন আধুনিক শিল্প যুক্ত হওয়ায় বর্তমানে উত্তরবঙ্গের অন্যতম অন্নদাতা হিসেবে যে তিনি প্রমাণ করতে পারলেন এই নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।এদিন এই নতুন আধুনিক পোল্ট্রি ফার্ম এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্যাক্তিরা  সবাই বিশিষ্ট শিল্পপতি স্বপন সরকারের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানায়।  

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.