August 13, 2022

মনোনয়ন প্রত্যাহারের চাপ ,কংগ্রেস সমর্থকদের বাড়িতে ভাঙ্গচুর আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ

1 min read
বিশ্বজিৎ মন্ডল, মালদা : মনোনয়ন প্রত্যাহারের চাপ,আর তাতে রাজি না হওয়ায় কংগ্রেসের ২ প্রার্থী সহ মোট ১৪টি কংগ্রেস সমর্থকদের বাড়িতে ভাঙ্গচুর আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ।অভিযুক্তের কাঠগড়ায় শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে।ঘটনাটি ঘটেছে মালদার রতুয়া থানার চাঁদমুনি ২ অঞ্চল এলাকায়।ঘটনায় কংগ্রেসের এক পঞ্চায়েত সমিতির প্রার্থী ও গ্রামপঞ্চায়তের এক প্রার্থীর বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।ঘটনাস্থলে দমকলের একটি ইঞ্জিন পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।ঘটনা ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা এলাকায়।
দীর্ঘদিন ধরে কংগ্রেসের দখলে থাকা রাতুয়ার চাঁদমুনি ২ গ্রাম পঞ্চায়েত দখল নিতে মরিয়া তৃণমূল।মনোনয়ন পত্র পেসের পর থেকেই হুমকি আর অশাস্তির খবর আসছিলো।অভিযোগ এই গ্রাম পঞ্চায়েত এবং রতুয়া ১ পঞ্চায়েত সমিতির কংগ্রেস প্রার্থীদের বারবার হুমকি দেওয়া হচ্চিলো তারা যেন মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেয়।রাজি না হওয়ায় বুধবার সকাল থেকেই চাঁদমুনি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের কংগ্রেস প্রার্থী মাসিদুর রহমান এবং রতুয়া ১ পঞ্চায়েত সমিতির কংগ্রেস প্রার্থী মমতাজ বেগমের বাড়িতে চড়াও হয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।ঘটে অগ্নিসংযোগের ঘটনা।চলে গুলি বোমা।মুহূর্তের মধ্যেই এলাকা রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে।এই দুই কংগ্রেস প্রার্থী ছাড়া মোট নয় জনের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।সাথে ১৪ টি বাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়েছে।এরা সকলেই কংগ্রেস সমর্থক।অভিযোগ ঘটনার পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হলেও  বেশ কিছু সময় পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ ও দমকল।ততক্ষনে বেশ কয়েকটি ঘরের জিনিসপত্র সমস্তই পুড়ে যায়।পুলিশ ঘটনাস্থলে না পৌঁছানো পৰ্যন্ত চলে ব্যাপক বোমাবাজি গুলি।পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।তবে এখনো গ্রামে উত্তেজনা বিরাজ।বর্তমানে এলাকা জুড়ে পুলিশের টহল চলছে।গ্রাম প্রায় পুরুষ শুন্য।ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।দীর্ঘদিন ধরেই এই চাঁদমুনি ২ অঞ্চল কংগ্রেসের শক্ত খাঁটি।ফলে এই পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে এলাকা দখলে মরিয়া তৃণমূল।এই পরিস্থিতিতে পুলিশ ও জেলা প্রশাসন সক্রিয় ভূমিকা না গ্রহণ করে,তাহলে আগামীতে এই এলাকা অগ্নিগর্ভ হবে,প্রাণ হানিও ঘটবে এই বিষয়ে সন্দেহ নেই!

Leave a Reply

Your email address will not be published.