August 13, 2022

খিচুরি যতই বিরোধীতা পাকাক না কেন মানুষ উন্নয়ন ই বোঝেন,তাই পঞ্চায়েতের জয় এখন শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষাঃ- অমল আচার্য্য

1 min read

তন্ময় চক্রবত্তী ঃ-  যারা নিবাচনের আগেই
হেরে যাওয়ার ভয় করে তারাই সান্ত্রাস সন্ত্রাস করে চিৎকার করে। এক একান্ত
সাক্ষাৎকারে তার নিজের ইটাহারের বাড়িতে বসে একথা জানালেন তৃনমূল কংগ্রেসের উত্তর
দিনাজপুর জেলার সভাপতি অমল আচার্য্য। তিনি বলেন রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী মমতা
বান্যাজীর উদ্দ্যগে যে ভাবে রাজ্য জুরে ঐতিহাসিক 
গ্রামবাবাংলার উন্নয়ন হয়েছে তাতে বিরোধীরা আগেই হেরে বসে  আছে পঞ্চায়েত নির্বাচনে। তাই বিরোধী মাঠে নামার
আগে চিৎকার করছে সন্ত্রাস সন্ত্রাস। আসলে এসব কিছু না। 


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});


 তৃনমূল কংগ্রেস এর জেলা  সভাপতি অমল আচার্য্য
এগুলি বিরোধীরা পরিকল্পনা
করে সন্ত্রাস সৃষ্টি করতে চাইছে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গার সাথে সাথে উত্তর দিনাজপুর
জেলাতেও।তৃনমূল কংগ্রেস এর জেলা  সভাপতি
অমল আচার্য্য আরো বলেন

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
বিরোধীরা যত খিচুরি জোট পাকাক না কেন মানুষ তার জবাব দেবে
বুলেটে না ব্যালটে আগামী পঞ্চায়েত নিবাচনের ফলাফলে।এর আগেও খিচুরি জোট করারা ঝাল
তারা বুঝে গেছে গত বিধানসভা নিবাচনে।কংগ্রেস সাইনবোর্ড
, সিপিআই এম নিশ্চিন্ন আর বিজেপি হাওয়া হয়ে গেছে।এবারো
পঞ্চায়েত নিবাচনের মানুষ ই শেষ বিচার করবে। 


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

অমল আচার্য্য বলেন এবার উত্তর দিনাজপুর
জেলায় তৃনমূল কংগ্রেস বিরোধী শুন্য ফলাফল রাজ্যের মূখমন্ত্রীকে উপহার দিবেন।কারন
যে ভাবে সারা রাজ্যের সঙ্গে তাল মিলিয়ে উত্তরদিনাজপুর জেলায় বিভিন্ন গ্রামে গ্রমে
মানুষ যে ভাবে রাস্তা ঘাট থেকে বৈদতিক আলো কর্মসংস্থান থেকে আধুনিক সেচ ব্যাবস্থার
পাশাপশি  কন্যাশী
,যুবশ্রী,সবুজসাথী সহ
নানান রাজ্য সরকারের মানবিক পরিককল্পনার সুফল 
পেয়েছেন  তাতে মানুষ আগেই দুই হাত
তুলে আশিরবাদ দিয়ে রেখেছেন রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রীকে।তিনি বলেন যে ভাবে গ্রামে
গ্রামে উন্নয়ন করে চলছে বর্তমান রাজ্যে সরকার তাতে কিছুদিন  পর নতুন আর কোন প্রকল্প করার কিছুই থাকবে না
তখন  শুধু সেগুলোর মেরামতি করতে হবে। তিনি
বলেন বিগত ৫ বছরে উত্তল দিনাজপুর জেলার নিবাচিত পঞ্চায়েতের তৃনমূলের সদস্য রা যে
কাজগুলি করছে  তিনি সন্তুষ্ট তবে আরো বেশী
কাজ করতে হবে বলে মানুষের জন্য বলে তিনি মনে 
করেন। তিনি বলেন  স্বাধীনতার পর
থেকে বাংলায় যতগুলি সরকার এসছে মানুষের কাজ কাজ করতে তার মধ্যে বর্তমানে রাজ্যের
মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনাজীর নেত্বতে মা মাটি মানুষের সরকার আসল সরকার মানুষের জন্য
বলে তিনি মনে করেন।তাই সরকারের নেতৃত্বে এখন গ্রামবাংলায় উন্নয়নের বৈপ্লবিক পরিবতন
হয়েছে।অমল আচার্য্য বলেন আগামী দিনে গ্রামে অনেক কাজ বাকি আছে এবার পঞ্চায়েত আবার
হাতে আসার পর সেই কাজ গুলি করতে হবে।পঞ্চায়েতের জয় এখন শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা

Leave a Reply

Your email address will not be published.