August 14, 2022

হেমতাবাদে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আসছেন আজ , চাপের মুখে কংগ্রেস ও বামেরা

1 min read
                          


বর্তমানের কথা :- উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ ব্লকের বিধানসভা আসনটি ছাড়া গ্রাম পঞ্চায়েত স্তর থেকে বাকি প্রায় সমস্ত কিছুই তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে চলে গিয়েছে। একদা বামদুর্গ বলে পরিচিত হেমতাবাদ ব্লকে আজ  মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আসছেন। এখানে দুটি জেলা পরিষদ আসনে বামেরা জয়ী হয় গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে । ওই দুটি এখন তৃণমূলের দখলে চলে এসেছে। পাশাপাশি পঞ্চায়েত সমিতি ও গ্রাম পঞ্চায়েতের বেশিরভাগ আসনে বামেরা জিতলেও পঞ্চায়েতের ওই তিন স্তরের অধিকাংশ আসনই তৃণমূল দখলে নিয়েছে। গত বিধানসভা নির্বাচনে এখানে বামেরা জয়ী হয়েছিল। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রীর এই কর্মসূচি বামেদের কফিনে শেষ পেরেক পোঁতার সূত্রপাত হতে পারে। সিপিএমের হেমতাবাদ এরিয়া কমিটির সদস্য স্বপন ঘোষ বলেন, আমরা আমাদের শক্তি নিয়েই লড়ব। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন হলে এবং মানুষ সঠিকভাবে মত প্রকাশ করতে পারলে পঞ্চায়েত ভোটে এখানে কী ফল হয় মানুষ তা দেখতে পাবে।


 
হেমতাবদ ব্লক তৃণমূল সভাপতি প্রফুল্ল বর্মন বলেন, ব্লকে দলের ভিত আগের থেকে অনেক শক্ত হয়েছে। হেমতাবাদ ব্লকের দুটি জেলা পরিষদ, ১৫টি পঞ্চায়েত সমিতি এবং পাঁচটি গ্রাম পঞ্চায়েত এখন আমাদের দখলে আছে। গত বিধানসভা নির্বাচনে এখানে সঠিক প্রার্থী দিতে পারলে আমরাই জয়ী হতাম। ব্লকে গত কবছরে প্রচুর উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে। পঞ্চায়েত নির্বাচনে আমরাই এখানে জয়ী হব। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে হেমতাবাদ ব্লকের দুটি জেলা পরিষদ আসনের মধ্যে একটিতে আরএসপি এবং অপরটিতে সিপিএম জয়ী হয়েছিল। বর্তমানে ওই দুজনই তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। এখানকার ১৫টি পঞ্চায়েত সমিতির আসনের মধ্যে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বামেরা ১৪টি এবং কংগ্রেস একটি আসনে জয়ী হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে বামেদের ১৪ জন পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যের ম঩ধ্যে আট জন এবং এক জন কংগ্রেসের সদস্য তৃণমূলে চলে এসেছেন। এই পরিস্থিতিতে হেমতাবাদ পঞ্চায়েত সমিতি এখন তৃণমূলের দখলে রয়েছে। হেমতাবাদের পাঁচটি গ্রাম পঞ্চায়েত নওদা, বিষ্ণুপুর, চইনগর, হেমতাবাদ ও বাঙালবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বামেরা জিতেছিল। ওই পাঁচটি গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট ৮৬টি আসনের মধ্যে তৃণমূল মাত্র সাতটি আসনে জয়ী হতে পেরেছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে দল বদলের মাধ্যমে ওই পাঁচটি গ্রাম পঞ্চায়েতই তৃণমূলের দখলে চলে এসেছে। এরপর গত বিধানসভা নির্বাচনে হেমতাবাদ আসনে তৃণমূল বামেদের কাছে পরাজিত হয়। ফলে ওই এলাকায় কিছুটা হলেওতৃণমূল কংগ্রেসের মুখ পুড়েছিল। এই প্রথম হেমতাবাদ ব্লকের হেমতাবাদ থানা মাঠে মুখ্যমন্ত্রী আসছেন সরকারি পরিষেবা প্রদান কর্মসূচি  তে ।  ওই মঞ্চেই মুখ্যমন্ত্রী কী ঘোষণা করেন সেদিকেই বাসিন্দরা তাকিয়ে আছেন। এমনিতেই বামেরা এখানে ব্যাকফুটে রয়েছে। এর ওপরে মুখ্যমন্ত্রীর পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠান এখানে হয়ে যাওয়ার পর স্বাভাবিক ভাবেই তারা আরও চাপের মুখে পড়বে বলে জেলার রাজনৈতিক মহল মনে করছে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published.