September 4, 2022

রাধিকাপুর-কলকাতা দিনের ট্রেন ও া কালিয়াগঞ্জ-বুনিয়াদপুর বন্ধ থাকা রেলপথের কাজ শুরু না হওয়ায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের উপর উত্তরদিনাজপুর জেলার মানুষ প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ।

1 min read


তপন চক্রবর্তী উত্তরদিনাজপুর- এবারের রেল বাজেটে উত্তরদিনাজপুর  জেলার জন্য কোন কিছু না দেওয়ায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কাজকর্মে জেলার সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করে।উত্তরদিনাজপুর জেলার ভারতবাংলাদেশসীমান্তের সাধারণ মানুষদের জন্য মাত্র একটি ট্রেন থাকায় কলকাতা যাবার জন্য মাত্র একটিট্রেনথাকায়সেইট্রেনেএকমাসআগেওরিজার্ভেশন করা সম্ভব হয়না।ট্রেনে টিকিট কাটতে না পারায় অনেককে রায়গঞ্জ গিয়ে কষ্ট করে বাস ধরতে হয়।রায়গঞ্জের সংসদ বেশ কয়েকবার রেল মন্ত্রীর সাথে দেখা করে সমস্যা র কথা জানালেও আজ ও সেই সমস্যার কোন সমাধান করা হয়নি।মাস কয়েক আগে রায়গঞ্জের সংসদ মহম্মদ সেলিম রেল মন্ত্রীর সাথে দেখা করলে তদানীন্তন রেল মন্ত্রী সুরেশ প্রভুর সাথে কথা বললে সুরেশ প্রভু রায়গঞ্জের সাংসদকে জানায় খুব শীঘ্রই সকালে বালুরঘাট থেকে যে তেভাগা এক্সপ্রেস ট্রেনটি কলকাতায় যায় তার সাথে রাধিকাপুরের কোচ জুড়ে দেওয়া হবে আপাতত।কিন্তু সেটাও কার্যকরী না হবার ফলে সমস্যার কোন সুরাহ হয়নি।ফলে সাধারণ মানুষ কেন্দ্রের বিজেপির কাজকর্মে দারুন ক্ষুব্ধ। শুধু দিনের ট্রেন নয় কালিয়াগঞ্জ-বুনিয়াদপুর রেল প্রকল্পের কাজ কয়েকবছর পূর্বে শুরু করে দেবার পরেও তা কোন এক অজ্ঞাত কারণে তা বছরের পর বছর ধরে ফেলে রাখা হয়েছে।অথচ এই গুরুত্বপূর্ণ রেল প্রকল্পটির কাজ শেষ হলে দক্ষিণ দিনাজুর জেলার সীমান্ত শহর হিলি থেকে সরাসরি কম সময়ের মধ্যে যাত্রীরা উত্তরপূর্ব সীমান্তের সমস্ত শহরে যাতায়াত করবার সুযোগ পেতে পারে।অথচ এই রেলপথ নির্মাণের জন্য কেন্দ্রের রেল মন্ত্রকের কোন রকম মাথা ব্যাথা নেই। শুধু রেলমন্ত্রক কেন বিজেপির উত্তরদিনাজপুর জেলার জেলা সভাপটি নির্মল দাম কে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন কলকাতার দিনের একটি ট্রেনের জন্য কয়েকবার বিজেপির উর্ধতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে দাবি করা হয়েছে। আমরা আশা ছাড়িনি।চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে।কালিয়াগঞ্জ-বুনিয়াদপুর রেল প্রকল্পের কাজ সম্পর্কে প্রশ্ন করলে তিনি জানান এই প্রকল্পের কাজ যাতে খুব শীঘ্রই শুরু করা যায় সে ব্যাপারে আমরা চেষ্টা করছি বলে জানান।উত্তরদিনাজপুর জেলার মানুষদের বক্তব্য উত্তরদিনাজপুর জেলায় অনেক নেতা থাকলেও তাদের এই সমস্ত সমস্যা নিয়ে কোনভাবনা চিন্তা নেই।তাদের একটাই কাজ কোন দল থেকে দল ভাঙিয়ে কত মানুষকে তাদের দলে আনা যায় এই একটায় চিন্তা।উত্তরদিনাজুর জেলার মানুষদের দাবি অবিলম্বে রেল দপ্তর যদি উত্তরদিনাজপুর জেলার রেল বিষয়ক দুটি সমস্যার সমাধান না করে তাহলে সমগ্র উত্তরদিনাজপুর জেলা জুড়ে তারা বড়সড় আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে বলে জানান।অবহেলিত উত্তরদিনাজপুর জেলার  রেলের সমস্যা সমাধানে কোন রাজনৈতিক দল তাদের সাথে এই আন্দোলনে যোগ না দিলেও জেলা বাসীরা একাই একশো বলে মনে করেন।জানান উত্তরদিনাজপুর রেল যাত্রী পরিষেবা সমিতির সাধারণ সম্পাদক তপন চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.