August 13, 2022

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভারতীয জন ঔষুধী কেন্দ্রে ইতিমধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে গরীব মানুষদের কাছে উত্তর দিনাজপুর জেলার।

1 min read


প্রিয়া গুপ্তা (বর্তমানের কথা) ঃ একটা জীবনদায়ী ঔষুধ মানুষের প্রান কে রক্ষা করে আবার সেই জীবনদায়ী ঔষুধের দাম যখন সাধ্যের নাগালের থাকে না তখন অনেক গরীবমানুষকে তার প্রিয় মানুষকে হারায় সেই ঔষুধ অর্থের জন্য সময় মতো কিনতে না পারার জন্য ।এবার সেই সব গরীব মানুষদের জন্য ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয়  সরকার চালু করছে প্রধান মন্ত্রী ভারতীয় জন ঔষুধী বলছো কেন্দ্র ।যে ঔষুধের দোকান থেকে সাধারণ মানুষরা পাবেন একদম কম দামে জীবনদায়ী সব ঔষুধ।যে ঔষুধের দোকান গুলি ইতিমধ্যে ব্যাপক সারা ফেলে দিয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে ।সারা ভারতের সঙ্গে তাল মিলিয়ে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ হাসপাতাল পাড়ায চালু হয়েছে এমনি একটি প্রধানমন্ত্রী জন ঔষুধী কেন্দ্র ,যে জন ঔষুধী কেন্দ্রের  মাধ্যমে এখন বহু মানুষ উপকৃত হচ্ছেন ।ফলে ইতিমধ্যে এই ওষুধ কেন্দ্র  জনমানসের প্রভাব বিস্তার করে ফেলেছে।দোকানে গিয়ে দেখা যায় বহু দূরদূরান্ত থেকে বহু মানুষকে আসতে তারা এই ন্যায্য মূল্যের দোকান থেকে ঔষুধ কিনতে।তারা জানান এত দিন বহু অসুবিধায় পড়তে হতো অনেক দামে ঔষুধ কিনতে গিয়ে ।ফলে অনেক সময় আর্থিক সামর্থ না থাকার ফলে রোগ থাকলেও জীবনদায়ী ঔষুধ কেনার সামর্থ হত না।এমন ও দেখা যেত টাকার অভাবে  ঔষুধ না কেনার ফলে ওই অসুখ তাদের ধীরে ধীরে গ্রাস করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিত।বর্তমানে ভারতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্যোগে যে ঔষুধি কেন্দ্র খোলা হয়েছে বর্তমানে তার ফলে খুব কম ব্যাযে মানুষ পেয়ে যাচ্ছে জীবনদায়ী সঞ্জীবিনী।আজিত  কুমার দাস আর পাটোয়ারী নামে দুইজন স্থায়ী বাসিন্দারা জানালেন ,প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে যে ন্যায্য মূল্যে ঔষুধের দোকান খোলা হচ্ছে তাতে তাদের মতো অনেক দুস্থ পরিবার লাভবান হচ্ছে অন্যান্য দোকান থেকে একদম কম দামে পেযে।ফলে এই দোকানের উপর মানুষের প্রভাব ও ক্রমাগত বেড়েই চলেছে।তারা বলেন ডাক্তাররা যদি জেনেটিক নামে ঔষুধ লেখেন না ফলে অনেক সাধারণ মানুষদের অসুবিধা হচ্ছে ।আগামীতে যদি ডাক্তাররা এই দোকান থেকে প্রেসক্রাইব করেন তাহলে সাধারণ মানুষরা ভীষণ ভাবে উপকৃত হবেন।তারা প্রধানমন্ত্রী কে এই ঔষুধ কেন্দ্র খোলার জন্য ধন্য বাদ জানান।এদিকে দোকানের কর্মী পার্থ সাহা জানান তাদের প্রধান মন্ত্রী জন ঔষুধী কেন্দ্রে প্রচুর মানুষ প্রতিদিন আসছেন ঔষুধ নিতে।এখানে সব ঔষুধ পাওয়া যায তার পাশা পাশি ঔষুধের দাম ও আর পাঁচ টি দোকানের তুলনায় একদম কম মূল্যে ।ফলে সাধারণ মানুষ রা যে প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জন ঔষুধী কেন্দ্রের দোকানের মাধ্যমে তাদের সাধ্যের ঔষুধ পাচ্ছেন সে বিষয়ে কোন দ্বিমত নেই।ফলে সবাই ভারতের  প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগ কে সাধুবাদ জানাচ্ছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.